ধর্মভিত্তিক রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবি মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের


Dhaka | Published: 2024-03-22 23:18:14 BdST | Updated: 2024-05-24 22:17:14 BdST

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ (ঢাবি) সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মৌলবাদী শক্তির ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি ধর্মভিত্তিক রাজনীতি স্থায়ীভাবে নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

শুক্রবার (২২ মার্চ) সংগঠনটির সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক আল মামুন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিবৃতিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, প্রতি বছর রমজান মাসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইফতারকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীদের মাঝে এক ধরনের উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করে। বিভিন্ন বিভাগ, শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সংগঠন ও টিএসসিভিত্তিক বিভিন্ন সংগঠন কর্তৃক ইফতারের আয়োজন আমাদের মাঝে আনন্দ, সম্প্রীতি এবং অসাম্প্রদায়িকতার প্রতীক হিসেবে কাজ করে। এবারও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল স্থানে শিক্ষার্থীরা প্রতিবারের ন্যায় সুষ্ঠুভাবে ইফতার আয়োজন করছে। কিন্তু সাম্প্রতিককালে একটি স্বার্থান্বেষী সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী ইফতারকে কেন্দ্র করে ক্যাম্পাসে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করার চেষ্টা করছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে নিষিদ্ধ ঘোষিত সাম্প্রদায়িক মৌলবাদী সন্ত্রাসী সংগঠন ছাত্রশিবিরের সদস্যরা বিভিন্ন নামে বেনামে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের জন্য ধর্মীয় মোড়কে বহিরাগত শিবির ক্যাডারদের সাথে নিয়ে গণ ইফতারের মতো অস্বাভাবিক রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন করছে যা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মৌলিক নীতি ও আদর্শ পরিপন্থি। দেশের প্রচলিত আইন ও সংবিধান পরিপন্থি।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, প্রতিবছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীরা উৎসবমুখর পরিবেশে ইফতার আয়োজন করে থাকে যেখানে শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও কর্মচারীসহ বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকলের অংশগ্রহণ থাকে যা নষ্ট করার জন্য সাম্প্রদায়িক মৌলবাদী অপশক্তি গভীর ষড়যন্ত্র করছে। নিজেদের রাজনৈতিক এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি জামায়াত-শিবির ধর্মকে পুঁজি করে ঢাবিসহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্য পরিবেশ ধ্বংস করার গভীর ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। এরা সবসময় ধর্মকে রাজনীতিতে অপব্যবহার করে নিজেদের রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের চেষ্টা করে। ধর্মচর্চার নির্ধারিত জায়গা হলগুলোর মসজিদে ধর্মচর্চা না করে ভিন্ন উদ্দেশ্যে ঢাবি ক্যাম্পাসে সংস্কৃতি চর্চার জায়গাগুলোতে ধর্মীয় মোড়কে রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ড পরিচালিত করার চেষ্টা করছে।

নেতারা বলেন, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের দাবি, গণ-ইফতারের নামে ঢাবিসহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নাশকতা ও অস্থিতিশীল করার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি দিতে হবে। অবিলম্বে ঢাবিসহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ধর্মভিত্তিক রাজনীতি স্থায়ীভাবে নিষিদ্ধ করতে হবে। ধর্মভিত্তিক সংগঠনের রাজনীতির নামে ধর্মের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার ষড়যন্ত্র রুখে দিতে হবে। প্রশাসনকে আরও কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। অন্যথায় ঢাবিসহ দেশব্যাপী সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করবে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।