মূল ক্যাম্পাসে ফেরার দাবিতে চবি চারুকলা শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ


CU Correspondent | Published: 2022-11-10 21:15:30 BdST | Updated: 2023-02-03 15:56:44 BdST

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটকে মূল ক্যাম্পাসে ফিরিয়ে আনার দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা৷

আজ বৃহস্পতিবার বিকেল সোয়া ৫টার দিকে এ অবরোধ শুরু হয়৷ সন্ধ্যা ৮টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নগরের মেহেদী বাগের বাদশা মিয়া সড়কে অবরোধ চলছে৷

এসব শিক্ষার্থীরা 'চলছে খেলা চলবে, চারুকলা লড়বে', 'দাবি মোদের একটাই চারুকলা ক্যাম্পাসে চাই', 'এক দফা এক দাবি, চারুকলা ক্যাম্পাসে আনি'সহ বিভিন্ন স্লোগান দেন।

শ্রেণিকক্ষের ছাদের প্লাস্টার ভেঙে পড়ার পর ১১ দফা দাবিতে গত ২ নভেম্বর থেকে ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ করছেন চারুকলার শিক্ষার্থীরা৷

গত শনিবার চারুকলা ইনস্টিটিউটকে মূল ক্যাম্পাসে স্থানান্তরের দাবিতে উপাচার্য শিরীণ আখতার বরাবর চিঠি দিয়েছেন আন্দোলনকারীরা৷

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, চারুকলা ইনস্টিটিউটকে মূল ক্যাম্পাসে ফিরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে ইনস্টিটিউটের শিক্ষকদের গত সোমবার ৩ দিনের সময় বেঁধে দিয়েছিলেন শিক্ষার্থীরা৷

এ বিষয়ে আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় ইনস্টিটিউটের পরিচালক প্রণব মিত্র চৌধুরী সব শিক্ষক নিয়ে সভা করেন৷ বিকেল ৫টা পর্যন্ত সভা চলে৷ শিক্ষার্থীরা জানান, সভায় কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো শিক্ষকরা তা জানাননি। এ কারণে সড়ক অবরোধ করে তারা বিক্ষোভ শুরু করেছেন৷

এ বিষয়ে চারুকলা ইনস্টিটিউটের স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ শহীদ, পার্থ রয় ও দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী নূর ইকবাল বলেন, 'উপাচার্য শিরীণ আখতারের সঙ্গে সাক্ষাতের পর তিনি জানিয়েছিলেন আগে ইনস্টিটিউটের শিক্ষকের সম্মতি নিতে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদের ক্যাম্পাসে ফিরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে একমত। কিন্তু ইনস্টিটিউটের শিক্ষকদের সিদ্ধান্ত জানাতে ৩ দিন সময় দেওয়া হলেও তারা কোনো আশ্বাস দেননি। সর্বশেষ আজকে সভায় কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে জানতে চাইলে সদুত্তর দিতে পারেনি৷ তাই আমরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছি।'

চারুকলা ইনস্টিটিউট মূল ক্যাম্পাসে ফিরিয়ে না নেওয়া পর্যন্ত সড়ক অবরোধ চলবে বলে জানান তারা।

এ বিষয়ে জানতে চারুকলা ইনস্টিটিউটের পরিচালক প্রণব মিত্র চৌধুরীর মোবাইলে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

ওই ইনস্টিটিউটের শিক্ষক শায়লা শারমিন বলেন, 'শিক্ষার্থীরা শিক্ষকদের ইনস্টিটিউটের ভেতরে রেখেই ফটকে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছিল৷ তাই তাদেরকে বলা হয়েছিল তালা না খুলে দিলে কিছু জানানো হবে না৷'

তবে আজকের সভায় কী সিদ্ধান্ত হয়েছে তা জানতে চাইলে তিনি তা বলতে রাজি হননি৷

গতকাল বুধবার বেলা আড়াইটায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের সামনে মানববন্ধন করেন শিক্ষার্থীরা। এতে চারুকলা ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন৷

এসময় শিক্ষার্থীদের হাতে, 'ফিরে আসুক চারুকলা'; '২১০০ একর জানে না, চারুকলার ঠিকানা'; 'চারুকলা ক্যাম্পসে আনো'; 'উই নিড ফাইন আর্টস'সহ বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড দেখা যায়৷

চারুকলা অনুষদের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তানজিনা ইয়াসমিন বলেন, 'চারুকলা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে হলেও মূল ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীদের মতো আমরা কোনো সুবিধা পাই না৷ আবাসান সংকট, শৌচাগার সংকট, গ্রন্থাগার সংকটসহ সবকিছুতেই সংকট রয়েছে৷ আমরা এ অবস্থার স্থায়ী সমাধান চাই।'

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে চারুকলা বিভাগের যাত্রা শুরু হয় ১৯৭০ সালে। ২০১০ সালে নগরের সরকারি চারুকলা কলেজের সঙ্গে এক হয়ে গঠিত হয় চারুকলা ইনস্টিটিউট। ইনস্টিটিউটের অবস্থান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২২ কিলোমিটার দূরে, নগরের মেহেদীবাগের বাদশা মিয়া সড়কে। বর্তমানে ইনস্টিটিউটে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৩৫৩ জন। তাদের মধ্যে ১৭৯ জন নারী শিক্ষার্থী ও ১৭৪ জন পুরুষ শিক্ষার্থী রয়েছেন।

//